সাঘাটায় ব্রহ্মপুত্র নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত, বন্যার আশঙ্কা।

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

মোস্তাফিজুর রহমান, সাঘাটা (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ

উজান থেকে নেমে আসা ঢল ও বৃষ্টির পানিতে সাঘাটার ব্রহ্মপুত্র নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় বড় ধরনের বন্যার আশঙ্কা করছেন চরাঞ্চলের মানুষ। গত ২৪ ঘন্টায় ব্রহ্মপুত্র পানি বৃদ্ধি পেয়ে উপজেলার নদ-নদী তীরবর্তী চরের নিম্নাঞ্চলগুলোতে পানি প্রবেশ করায় তলিয়ে গেছে আমনসহ সবজি ক্ষেত।

পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় প্লাবিত হয়ে পড়ছে চরাঞ্চলের নতুন নতুন এলাকা। উপজেলার হলদিয়া ও জুমারবাড়ী ইউনিয়নের থৈকরেরপাড়া ও ব্যাঙারপাড়া গ্রামে পানি বৃদ্ধি পেয়ে নিঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় ওই এলাকার প্রায় ২’শ বিঘা রোপা আমন ও সবজিক্ষেত পানিতে নিমজ্জিত হওয়ায় কৃষকের মাথায় হাত পড়েছে। সেই সাথে নদী ভাঙ্গন শুরু হওয়ায় নদী পাড়ের লোকজন আতংকে দিন পার করছেন। এমনকি সুবিধামত স্থানে বাড়ীঘর সড়িয়ে নিচ্ছেন।

ভাঙ্গনের মুখে রয়েছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ঘরবাড়ীসহ বহু আবাদী জমি। স্থানীয় মোয়াজ্জেম মিয়া বলেন, “যেভাবে পানি বাড়ছে নদীতে এবারে, মনে হয় ভিটে মাটি গিলে খাবে। উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা শহিদার ইসলাম জানান, গত ৩ দিন ধরে যেভাবে ব্রহ্মপুত্রর পানি বাড়ছে তাতে বড় ধরনের বন্যা হতে পারে। আমরা কৃষকরা সেচ দিয়ে কিছু জমিতে আমন লাগিয়েছি। এসব আমন ক্ষেত তলিয়ে গেছে।

গত ৩ দিন ধরে নদীর পানি বাড়তেই আছে। পানি কমে না গেলে ক্ষেত নষ্ট হয়ে যাবে। হলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ইয়াকুব আলী জানান, নদী ভাঙ্গন বিষয় নিয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডকে কয়েকবার অবগত করা হয়েছে। তারা জিও ব্যাগ ফেলেই ক্ষ্যান্ত। নদী ভাঙ্গন রোধে স্থায়ী কোন ব্যবস্থা এখন চোখে পড়ছে না।

উল্লেখ্য বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, গতকাল বৃহস্পতিবার দেশের বিভিন্ন নদ-নদীর ৯৪টি পয়েন্টের মধ্যে ৭৪টির পানি বেড়েছে। কমেছে ১৮টির। গতকাল পর্যন্ত কোনো নদীর পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করেনি। তবে ব্রহ্মপুত্রের পানি বিপৎসীমার কাছাকাছি রয়েছে। আজ-কালের মধ্যে তা বিপৎসীমা অতিক্রম করতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

ফেসবুকে আমরা …